শিশুদের সুন্দর নাম রাখুন

বাংলা উইকিপিডিয়ায় শিশুর সংজ্ঞা এভাবে দেয়া আছে শিশু বা ইংরেজিতে ‘চাইল্ড’ হচ্ছে ভূমিষ্ঠকালীন ব্যক্তির প্রাথমিক রূপ। যে এখনো যৌবনপ্রাপ্ত হয়নি। কিংবা বয়ঃসন্ধিক্ষণে পৌঁছেনি। সে শিশু হিসেবে সমাজ এবং রাষ্ট্রে পরিচিত হবে। সাধারণত ১৫ বছরের নিচে অবস্থানকারীদের শিশু বলা হয়। জীববিজ্ঞানের ভাষায়Ñ ‘মনুষ্য সন্তানের জন্ম এবং বয়ঃসন্ধির মধ্যবর্তী পর্যায়ের রূপই হচ্ছে শিশু।’ চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায়Ñ ‘মায়ের মাতৃগর্ভে ভ্রƒণ আকারে অভূমিষ্ঠ সন্তানই শিশু।’ সুতরাং আমরা বলতে পারি, যারা অপ্রাপ্তবয়স্ক এবং বুদ্ধি-বিবেচনার কোনো জ্ঞান রাখে না তারাই শিশু।
Continue reading শিশুদের সুন্দর নাম রাখুন

অপচয়কারীকে আল্লাহ অপছন্দ করেন

আল্লাহ তায়ালা কুরআনুল কারিমে ইরশাদ করেন, ‘খাও, পান করো কিন্তু অপচয় করো না। নিশ্চয়ই আল্লাহ তায়ালা অপচয়কারীকে পছন্দ করেন না।’ (সূরা আরাফ : ৩১)
ইবনে আব্বাস রা: বলেন, আল্লাহ তায়ালা পানাহারকে হালাল সাব্যস্ত করেছেন, যে পর্যন্ত না তার মধ্যে অপব্যয়, অহঙ্কার ও আত্মম্ভরিতা না হয়। Continue reading অপচয়কারীকে আল্লাহ অপছন্দ করেন

কুরআনের সম্মোহনী শক্তি

আল কুরআন অবতীর্ণের প্রাক্কালে স্বয়ং কুরআনই আরবদেরকে এর সম্মোহনী শক্তিতে সম্মোহিত করেছিল। যার অন্তরকে আল্লাহর ইসলামের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছিল তিনি এবং যাদের মনের ওপর ও চোখের ওপর পর্দা পড়ে গিয়েছিল তারাও এ কুরআনের সম্মোহনী প্রভাবে প্রভাবিত হয়েছে। যদিও তারা এ কুরআন থেকে কোনো উপকৃত হতে পারেনি। কিন্তু কতিপয় ব্যক্তিত্ব এমন ছিল, যারা শুধু নবী করীম সা:-এর স্ত্রী মুহতারামা খাদিজা রা:, তাঁর মুক্ত করা ক্রীতদাস হজরত যায়িদ রা: প্রমুখ। এঁদেরকে ছাড়া প্রাথমিক অবস্থায় যারা ইসলাম গ্রহণ করেছিল, তখন রাসূল সা: এত বেশি শক্তি ও মতাশালী ছিলেন না যে, তাঁরা তাঁর মতা ও শক্তিমত্তায় বিমোহিত হয়ে ইসলাম গ্রহণ করেছিল। বরং তাঁদের ইসলাম গ্রহণের মূলে ছিল আল কুরআনের মায়াবী আকর্ষণ।
Continue reading কুরআনের সম্মোহনী শক্তি