রোজা বা উপবাসের মাধ্যমে ক্যানসার প্রতিরোধ করা যায়

সাদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির একদল গবেষকের গবেষণায় দেখা গেছে, উপবাস বা রোজা টিউমার সৃষ্টি ও এটির ক্রমবিস্তারের গতিরোধ করে থাকে। কিছু ক্যানসারের চিকিৎসার পাশাপাশি অভুক্ত থাকলে ওসব ক্যানসার ভালো হয়ে যায়।

Continue reading রোজা বা উপবাসের মাধ্যমে ক্যানসার প্রতিরোধ করা যায়

রমজানের প্রস্তুতি যেভাবে নেবেন

রমজানের পূর্বাভাস নিয়ে হাজির হওয়া শাবান মাস ক্রমেই এগিয়ে যাচ্ছে সমাপ্তির দিকে। ক্ষমার মহান বারতা নিয়ে সমহিমায় হাজির হচ্ছে পবিত্র রমজান। দিকে দিকে ছড়িয়ে পড়ছে রমজানের আগমনী বার্তা। মুমিনের হৃদয়মাত্রই প্রহর গুনছে রমজানের একফালি চাঁদের জন্য। এ মাসে প্রতিটি ইবাদতের প্রতিদান যেমন বহুগুণে বেড়ে যায়, তেমনি সব পাপ ছেড়ে দিয়ে ভালো মানুষ হিসেবে নিজের জীবনকে নতুন করে সাজানোর সুযোগও এনে দেয় রমজান।

Continue reading রমজানের প্রস্তুতি যেভাবে নেবেন

রমযান মাস উপলক্ষে প্রস্তুতি নেয়ার কিছু প্রশংসনীয় পদক্ষেপ

রমযান মাস উপলক্ষে প্রস্তুতি নেয়ার কিছু প্রশংসনীয় পদক্ষেপ হল:

১. সত্যিকার তাওবাহ

আর এটি সবসময়ের জন্যই ওয়াজিব, তবে যেহেতু এক মহান মুবারাক (বরকতময়) মাসের দিকে সে এগিয়ে যাচ্ছে তাই তার ও তার রবের মাঝে যে গুনাহগুলো আছে এবং তার ও মানুষের মাঝে যে অধিকারসমূহ রয়েছে সেগুলো থেকে দ্রুত তাওবাহ করার জন্য তার আরও বেশি তৎপর হওয়া উচিৎ; যাতে করে সে এই মুবারক (বরকতময়) মাসে পবিত্র মন ও প্রশান্ত হৃদয় নিয়ে প্রবেশ করে আনুগত্য ও ‘ইবাদাতে মশগুল হতে পারে।

Continue reading রমযান মাস উপলক্ষে প্রস্তুতি নেয়ার কিছু প্রশংসনীয় পদক্ষেপ

ঈদ ইবাদতকেন্দ্রিক উৎসব

শাব্দিক অর্থে ঈদ মানে আনন্দ হলেও প্রকৃত বিবেচনায় ঈদ কেবলই একটি আনন্দময় দিন নয়; বরং ঈদ একটি ইবাদত। তাই মুসলমানের ঈদের মূল বক্তব্য হলো মহান আল্লাহর স্মরণ, তার জিকির, তার শ্রেষ্ঠত্ব, তার বড়ত্বকে সামনে রেখে সম্মিলিত আনন্দের পরিবেশ গড়ে তোলা। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে বান্দা যে মহান প্রভুর দরবারে রোজা, তারাবিহ, রহমত, মাগফিরাত, নাজাত, শবেকদরের মতো হাজার মাসের চেয়ে উত্তম রাতের প্রাপ্তিÑ এসব নেয়ামতের কারণে বান্দার মনে যে আনন্দের জোয়ার সৃষ্টি হয়, তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটে ঈদের দিনে। তাই মুমিনের ঈদ মানে নেয়ামতপ্রাপ্তির আনন্দ, মহান দরবারের কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপনের মহা আয়োজন।

Continue reading ঈদ ইবাদতকেন্দ্রিক উৎসব

রোজার শুদ্ধতা ও জাকাতুল ফিতর

দীর্ঘ একমাস সিয়াম সাধনার (দৈহিক ইবাদতের) পর বিশেষ আর্থিক ইবাদত হলো, জাকাতুল ফিতর বা ফিতরা। গরিবদের ঈদের আনন্দে শরিক হওয়া এবং রোজাকে ত্র“টিমুক্ত করতে ইসলামী শরিয়াহ এটা আবশ্যক করে দিয়েছে। দ্বিতীয় হিজরিতে এটা আবশ্যক করা হয়। পরিবারের সব সদস্যের প থেকে নির্ধারিত হারে সম্পদ অভাবীদের মাঝে বণ্টন করা জাকাতুল ফিতর। এ ফিতরাকে বিভিন্ন হাদিসে সাদাকাতুল ফিতর, জাকাতুল ফিতর, জাকাতুস সওম, জাকাতে রমাজান, জাকাতে আবদান (দেহের জাকাত) ও সদাকাতুর রুউস বলা হয়েছে (আওনুল বারী)।

Continue reading রোজার শুদ্ধতা ও জাকাতুল ফিতর

সংখ্যাতত্ত্বে শবেকদর

অন্যান্য উম্মতের শত শত বছর, হাজার বছর পর্যন্ত হায়াত ছিল। এই হায়াত দিয়ে তারা আল্লাহ তালার প্রিয় বান্দা হওয়ার জন্য অনেক বেশি নেক আমল করতে পারত। রাসূল সা:-এর উম্মতের হায়াত কম, তাই আল্লাহ রব্বুল আলামীন এই উম্মতকে লাইলাতুল কদর বা শবেকদরের রাত উপহার দিয়েছেন। তাই এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের প্রিয় বান্দা হওয়া সম্ভব।

Continue reading সংখ্যাতত্ত্বে শবেকদর